১. ওয়েব পেইজ কী?

উত্তরঃ ওয়েব পেজ হলো এক ধরণের ওয়েব ডকুমেন্ট যা World Wide Web (WWW). ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের দেখার জন্য বিভিন্ন দেশের সার্ভারে রাখা ফাইলকে ওয়েব পেজ বলে।

২. ওয়েব পেইজ ডিজাইন কী?

উত্তরঃ ওয়েবপেজ হলো সারা বিশ্বে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যুক্ত বিভিন্ন সার্ভারে (বড় ক্ষমতা সম্পন্ন কম্পিউটার) রক্ষিত ফাইল, যা হাইপার টেক্সট মার্কআপ ল্যাংগুয়েজের (HTML) ওপর ভিত্তি করে তৈরিকৃত ডকুমেন্ট। ওয়েব ডিজাইন হলো নির্দিষ্ট বিষয় নির্ধারণ, গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ওয়েবপেজ প্রদর্শন- এ তিনটি বিষয়ের সম্মিলিত রূপ।

৩. ডোমেইন নেম কী?

উত্তরঃ ক্যারেক্টার ফর্মে দেওয়া কম্পিউটারে এরূপ নামকে ডোমেইন নেম বলে।

৪. টপ লেভেল ডোমেইন কাকে বলে?

উত্তরঃ ডোমেইন নেমের ডট এর পরের অংশটিকে টপ লেভেল ডোমেইন বলা হয়।

৫. edu দ্বারা কী বোঝায়?

উত্তরঃ edu দ্বারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বুঝায়।

৬. ওয়েব কী?

উত্তরঃ ওয়েব হলো ইন্টারনেট ব্যবহার করার একটি পথ বা ইন্টারনেটের একটি অ্যাপ্লিকেশন।

৭. ওয়েব সাইটের কাঠামো কাকে বলে?

উত্তরঃ যে অবকাঠামোতে একটি ওয়েবসাইটের সকল তথ্য বা বিষয়বস্ত উপস্থাপন করা হয় তাকে ওয়েবসাইটের কাঠামো বলো। সমগ্র বিশ্বের নেটওয়ার্কের সাথে ওয়েবসাইটের নেটওয়ার্কও একই বন্ধনে বাঁধা।

৮. মূল পেইজ কী?

উত্তরঃ মূল পেইজ বা Home Page বলতে আমরা বুঝি, কোন ওয়েব সাইটে প্রবেশের পর প্রথম যে পেজ আমরা দেখতে পাই তাই হলো মূল পেইজ বা Home Page

৯. ডোমেইন নেম কী?

উত্তরঃ ডোমেইন নেম (Domain Name) আইপি অ্যাড্রেস নাম্বার দ্বারা লিখিত হয়। আইপি অ্যাড্রেসের জন্য সংখ্যা মনে রাখা কষ্টকর। তাই আইপি অ্যাড্রেসকে সহজে ব্যবহারযোগ্য করার জন্য ইংরেজী অক্ষরের কোন নাম ব্যবহার করা হয়। ক্যারেক্টার ফর্মের দেওয়া কম্পিউটারের এরূপ নামকে ডোমেইন নেম বলা হয়।

১০. Browser কী?

উত্তরঃ ওয়েব ব্রাউজার হল এমন একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী যেকোন ওয়েব-পেইজ, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবে (WWW) অথবা লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্কে অবস্থিত কোন ওয়েব সাইটের যেকোনো তথ্য দেখতে ও অনুসন্ধান করতে পারে।এক কথায় বলা যায় ওয়েব ব্রাউজার হল একটা ওয়েব পেজ দেখার বাহক মাত্র।

১১. ফরম্যাটিং কাকে বলে?

উত্তরঃ সঠিক এবং উপস্থাপনযোগ্য লেখা বা টেক্সটকে সঠিক আকৃতি বা রূপ প্রদান করে, দৃষ্টিনন্দন করে, উপস্থাপন করে, একটি ওয়েব পেজকে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টাকে ফরম্যাটিং বলে।

১২. হাইপারলিং কী?

উত্তরঃ ওয়েবের ভাষায় বলতে গেলে হাইপারলিং হলো ওয়েবের একটি রিসোর্স অবস্থিত কোন রেফারেন্স (কোন ঠিকানা) যার সাহায্য পাঠক সরাসরি বা স্বতঃর্স্ফুতভাবে তার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছাতে পারবে।

১৩. www কী?

উত্তরঃ সমস্ত উন্মুক্ত ওয়েবসাইটগুলোকে সমষ্টিগতভাবে “World Wide Web” বা WWW বা বিশ্বব্যাপী জাল নাম দেওয়া হয়েছে। WWW হলো পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সার্ভারে রাখা পরস্পর সংযোগযোগ্য ওয়েব পেইজ।

১৪. ওয়েবসাইট কাকে বলে?

উত্তরঃ কোনো ওয়েব সার্ভারের রাখা ওয়েব পেইজ, ছবি, অডিও, ভিডিও ও অন্যান্য ডিজিটাল তথ্যের সমষ্টিকে ওয়েবসাইট বলে।

১৫. স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট কাকে বলে?

উত্তরঃ যে সকল ওয়েবসাইটের ডেটার মান ওয়েবপেজ লোডিং বা চালু করার পর পরিবর্তন করা যায় না তাকে স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট বলে।

১৬. স্ট্যাটিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ কী?

উত্তরঃ স্ট্যাটিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ “htm” অথবা “html”।

১৭. ডাইনামিক ওয়েবসাইট কাকে বলে?

উত্তরঃ যে সকল ওয়েবসাইটের ডেটার মান ওয়েবপেজ লোডিং বা চালু করার পর পরিবর্তন করা যায় না তাকে ডাইনামিক ওয়েবসাইট বলে।

১৮. ডাইনামিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ কী?

উত্তরঃ ডাইনামিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ PHP, ASP, JSP।

১৯. বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ওয়েব সাইটকে কয়ভাগে ভাগ করা যায়?

উত্তরঃ বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ওয়েবসাইটকে চারভাগে ভাগ করা যায়।

২০. লিনিয়ার স্ট্রাকচার কী?

উত্তরঃ যখন কোন ওয়েবসাইটের পেজগুলো ক্রমানুসারে করার স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে লিনিয়ার স্ট্রাকচার বলে।

২১. ট্রি বা হায়ারারকিক্যাল স্ট্রাকচার কী?

উত্তরঃ যখন কোন ওয়েবসাইটের কাঠামোতে সমস্ত ডকুমেন্টের পূর্নাঙ্গ চিত্র সংক্ষিপ্ত আকারে থাকে সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে ট্রি বা হায়ারারকিক্যাল স্ট্রাকচার বলে।

২২. হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার কী?

উত্তরঃ যখন একাধিক কাঠামো ব্যবহার করে ওয়েবসাইট ডিজাইন করা হয় সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার বলে।

২৩. ওয়েব লিঙ্ক বা নেটওয়ার্ক স্ট্রাকচার কী?

উত্তরঃ যখন ওয়েবসাইটে প্রতিটি পেইজের মধ্যে অন্য পেইজগুলো ল‌িঙ্ক করা থাকে সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার বলে।

২৪. ইন্টারনেট বুলেটিন বোর্ড কী?

উত্তরঃ WWW কে ইন্টারনেটের বুলেটিন বোর্ড বলা হয়।

২৫. HTML কী?

উত্তরঃ ওয়েব পেইজ তৈরিতে একটি সাধারণ এবং সবচেয়ে বহুল ল্যাঙ্গুয়েজ হচ্ছে HTML। ১৯৮০ সালে টিম বার্নার্স লি HTML রচনা করেন। তখন শুধুমাত্র একটি পাতার সাথে আর একটি পাতার সংযোগ ঘটানো হতো। ১৯৮৫ সালে এ পদ্ধতির নাম ছিল SGML । পরবর্তী সময়ে এ ভাষার উন্নতির সাথে সাথে এতে নির্মিত ফাইল পড়ার উপযোগী ব্রাউজারের উন্নতি ঘটতে লাগলো বেশ দ্রুত। প্রথম দিকে Linux, VMS অপারেটিং সিস্টেমে। ১৯৯৫ সালে মাইক্রোসফট কোম্পানি Internet Explorer বাজারজাত করেন ওয়েব পেইজ ব্রাউজিং এর জন্য।

২৬. HTML এর মৌলিক বিষয় কয়টি ও কী কী?

উত্তরঃ HTML এর মৌলিক বিষয় ২টি । যথা – ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউট

২৭. HTML 4.0 এর সংস্করণ কবে বের হয়?

উত্তরঃ HTML 4.0 এর সংস্করণ April 1998 তে বের হয় ।

২৮. কে HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন?

উত্তরঃ Sir Tim Berners Lee ওয়েব ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন।

২৯. কত সালে HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন?

উত্তরঃ ১৯৮৯ সালে Sir Tim Berners Lee ওয়েব ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন।

৩০. ট্যাগ কী?

উত্তরঃ ফাইল তৈরী করা হয় কিছু ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউটের সমম্বয়ে। ট্যাগ যেকোন নির্দেশন সুনির্দিষ্ট করে দেয়।

৩১. অ্যাট্রিবিউট কী?

উত্তরঃ ট্যাগের নির্দেশন সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারণ করে অ্যাট্রিবিউট।

৩২. ফন্ট ফ্যামিলি কী?

উত্তরঃ একাধিক ফন্ট একই নামের ভিন্নতর সংস্করণ হিসেবে প্রকাশ করলে একটি ফন্ট ফ্যামিলি সৃষ্টি হয়।

৩৩. ওপেনিং ট্যাগ কী বোঝায়?

উত্তরঃ HTML কে ট্যাগের ভাষাও বলা হয় কারণ বিভিন্ন ট্যাগের সমন্বয়েই ডকুমেন্ট তৈরি হয়। প্রতিটি ট্যাগ তার নিজস্ব নাম অনুসরণ করে কৌনিক (<>) ব্রাকেটে শুরু বা ওপেন করতে হয় এবং একে শুরু বা ওপেনিং ট্যাগ বলে।

৩৪. হাইপারলিংক কী?

উত্তরঃ হাইপারলিংক হলো একটি ওয়েবপেইজের কোন অংশের সাথে বা পেইজের অন্য অন্যান্য পেইজের সংযোগ স্থাপন করে ।

৩৫. ওয়েব ব্রাউজিং কী?

উত্তরঃ www হলো পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সার্ভারে রাখা পরস্পর সংযোগযোগ্য ওয়েব পেইজ। এই ওয়েব পেইজ পরিদর্শন করাকে ওয়েব ব্রাউজিং বলে।

৩৬. HTML এর পূর্ণরূপ কী?

উত্তরঃ HTML এর পূর্ণরূপ Hyper Text Markup Language ।

৩৭. URL এর পূর্ণরূপ কী?

উত্তরঃ URL এর পূর্ণরূপ Uniform Resource Locator ।

৩৮. URL কাকে বলে?

উত্তরঃ URL হলো কোন ওয়েব সাইটের অ্যাড্রেসকে বুঝায়।

৩৯. Search কী?

উত্তরঃ ওয়েব পেইজ থেকে কোন কিছু খোঁজাকে Search বলে।

৪০. ফ্রেম কী?

উত্তরঃ প্রতিটি HTML ডকুমেন্ট ফ্রেম বলা হয়।

৪১. ফ্রেম সেট কী?

উত্তরঃ উইন্ডোতে কীভাবে ফ্রেম বিভক্ত করা হবে তা নির্ধারণ করতে “ফ্রেম সেট” ট্যাগ ব্যবহার করা হয়।

৪২. ফ্রেম ট্যাগ কী?

উত্তরঃ HTML ডকুমেন্ট প্রতিটি ফ্রেমের মধ্যে কী রাখা হবে তা “ফ্রেম” ট্যাগ ব্যবহার করে নির্ধারণ করা হয়।

৪৩. হেডিং ট্যাগ কী?

উত্তরঃ HTML হেডিং ট্যাগের মাধ্যমে ফন্টকে বড় বা ছোট রূপ দেয়া যায়। এখানে ৬টি হেডিং ট্যাগ ব্যবহার করা যায়। হেডিং ১ হচ্ছে সবচেয়ে বড় এবং এর ক্রমান্বয়ে হেডিং ৬ সবচেয়ে ছোট।

৪৪. ওয়েব সাইট পাবলিশিং কী?

উত্তরঃ কোনো ওয়েব সাইটকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়াকে ওয়েবসাইট পাবলিশিং বলে।

৪৫. পরিকল্পনা অনুযায়ী ওয়েব সাইটকে তৈরি করাকে কী বলে?

উত্তরঃ পরিকল্পনা অনুযায়ী ওয়েব সাইটকে ডিজাইন করাকে ওয়েব ডিজাইন বলে।

৪৬. ওয়েবসাইটকে তৈরি হয় কী নিয়ে?

উত্তরঃ ওয়েবসাইটকে তৈরি হয় ওয়েব পেজ নিয়ে।

৪৭. তিনটি জনপ্রিয় ব্রাউজারের নাম লিখ?

উত্তরঃ তিনটি জনপ্রিয় ব্রাউজারের নামঃ১. গুগোল ক্রম২. মজিলা ফায়ার ফক্স৩. অপেরা

৪৮. ওয়েব সার্ভার কী?

উত্তরঃ ওয়েব সার্ভার হলো বিশেষ ধরণের হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যারকে বুঝায় যার সাহায্যে ঐ সার্ভারে রক্ষিত কোন উপাত্ত বা তথ্য ইন্টারনেটের মাধ্যমে অ্যাকসেস করা যায়।